১০০+ রোমান্টিক স্ট্যাটাস পোস্টে আপনাদের স্বাগতম। আজকের পোস্টে আপনাদের সাথে কিছু রোমান্টিক ফেসবুক স্ট্যাটাস, রাতের রোমান্টিক স্ট্যাটাস, মেয়েদের রোমান্টিক স্ট্যাটাস, কষ্টের এসএমএস, দুঃখের স্ট্যাটাস, বিরহের স্ট্যাটাস, কষ্টের ক্যাপশন, আবেগি রোমান্টিক স্ট্যাটাস, গভীর রাতের রোমান্টিক স্ট্যাটাস, ইমোশনাল ছেলেদের রোমান্টিক স্ট্যাটাস শেয়ার করব।

রোমান্টিক স্ট্যাটাস
রোমান্টিক স্ট্যাটাস

আপনি যদি মনের ভেতরে জমে থাকা ভালোবাসাকে প্রকাশ করার জন্য রোমান্টিক স্ট্যাটাস ও রোমান্টিক কথার ছবি খুঁজে থাকেন তাহলে আপনি সঠিক জায়গায় এসেছেন। কারণ আমাদের আজকের পোস্টটি প্রায় ১০০+রোমান্টিক স্ট্যাটাস নিয়ে সাজানো হয়েছে। এখান থেকে আপনি এই লেখাগুলোকে খুব সহজেই ফেসবুকে শেয়ার করতে পারবেন।

আরও দেখুনঃ

রোমান্টিক স্ট্যাটাস

1,নেমে এলো তবে ঝড় উড়ে গেলো শহরের আঁধার আচল উন্মুক্ত মাতাল শহরে ধুলো ওড়ে উড়ে যায় ঘামে জবজব যুবকের পোষা কাঁদাখোচা…বিনে পয়সার পাখি। 

২,জলে ভেসে তবে এসেছি নগরে সম্বিত ফেরার পর ছবি দেখে চিনে নেয়া যাবে এই ভেবে মুখ গুজে রেখেছি আঁধারে কখন ধাতস্থ হবো নাগরিক চালাকিতে কখন শিখে নেবো শহুরে বাবুয়ানা সব বলে পথ নির্দেশনা দেবে বিদেশী ইন্সট্রাক্টর। ওরা নাকি আমাদের চেয়ে পথ ঘাট ভালো চিনে আর তাই সম্বিত বিষয়ে যেসব ধারণা ছিলো ভুলে গেছি… মাটিতে বিছানো অন্ধকারে চোখ রেখে ভাবি, পীচ ঢালা পথ আর পাথরে বিশ্বাস রাখতে জানলে আমিও নগর বাউলের সাজে, নিয়নের তীর দেখে পৌছে যেতে পারতাম লক্ষ্যের কাছাকাছি…

৩,রুপালী জ্যোছনা বিভ্রান্তি ছড়ায়, অযত্নের অসমান পথ আমাদের পাতি রসায়নে যেনো মসৃণতা হয়ে ধরা দেয় হোচট খেয়েছি যতোবার, ততোবার বিলা খাই পথে, কখনো বা চাঁদের উপর…শহুরে হুংকারে শাপশাপান্ত করেছি তাহাদের, নিজেদের চোখ অথবা মনন নিরাপদ হেফাজতে রেখে। 

৪, অপেক্ষার সময়টাতে অনেক গাছপালা মেলে দেই, কল্পনার সীমানা পেরিয়ে ঢুকে যাই অনধিকারে, তাই বলে ভেবে বসো না যে সেসব আমার সত্যি সত্যি চাই। আমি তখন পাহাড় চূড়ায় গড়েছি ছোট্ট লগ কেবিনটারে। তার ব্যালকনিতে ঝুলিয়ে দেয়া দোলনায় দোল খেতে খেতে সুগন্ধি চায়ের কাপে চুমুক আলতো করে। তোমাকেও নিয়ে যাই কখনো সখনো… তুমি তরমুজ কেটেছো হীরক ছুড়িতে। হঠাৎ আঙুলে লাল রেখা ভেসে উঠলে বুঝি কেটে গেছে…জীবনের তাল-স্বপ্নের বিভ্রান্ত বলিরেখা। এসব আমার প্রত্যাশার তালিকায় ছিলো না কখনো, সত্যি করে এসব চাহিদা থাকলে আমি হয়তো পাহাড়ের কাছে মিনতি জানিয়ে একদিনের জন্য তারে আমার করে নিতাম, একদিনের জন্য হলেও টম কাকার সাদাঘরটাকে ধার চাইতাম… একদিনের জন্য হলেও তোমার পাশে বসে থাকতাম ব্যর্থ বিড়ালের মতো।

৫,শৈশবে কুড়িয়ে পাওয়া কড়িটার গায়ে অন্য কারো নাম লেখা ছিলো… তবুও কেনো জানি একেবারে একান্ত নিজের বলে আগলে রেখেছি তারে। সেই হারানো কড়িটা যার ছিলো সেও কি ভাবেনি কড়িটার কথা আমার মতোই! 

৬,ভোরের বাতাস কেমন আনমনা কাঁধ ছুঁয়ে যায় চমকে উঠে পেছনে তাকিয়ে দেখি, দূরত্ব বেড়েছে দ্বিগুনের বেশি… খিল খিল করে হেসে ফেলে কেউ; শব্দটাকে চেনা মনে হলেও সতর্ক জেনে গেছি ভাবনার সীমানা ডিঙিয়ে কখনো আসেনা রেলগাড়ি। 

৭,ঝড়ো বালুকনা তবে ঝরে যাক; বৃষ্টির বিলাসী পতনে বাজুক পুরোন দিনের সব কথা তবে… 

৮,ফিরে আসতে বলবোনা চাকারে! তবে থেমে যাবে সভ্যতা-এগিয়ে যাওয়া… আমিই না হয় গিয়ে দাঁড়ালাম তার পাশে না হয় দৌড়তে থাকি সভ্যতার গতিপথে, অনায়াসে। 

৯,পথের গা থেকে ঘামের গন্ধ ওঠে নতুন ধানের মতো; এমন শুকানো ত্বক কখন কিভাবে স্বেদসিক্ত হলো ভেবে এই বেলাটা কাটিয়ে দেই, রাত পেরিয়ে ভোরের আলো এসে থমকে দাঁড়ালে না হয় জানালাটা খুলে দেয়া যাবে। জানালার সাথে কপাটের কি সম্পর্ক লেখা আছে? কাজলে কাজলে খুঁজে আমি কেবল জলের কথা জেনেছি-মেনেছি…জানা বোঝা বলে আসলে কখনো কিছু থাকে না জীবনে, সবটাই মেনে নেয়া নিয়মের ব্যর্থ অথবা সফল ছায়াছবি। কেউ কেউ তারে নিয়তি বলেছে… ়

১০,আঙুলে ছুঁয়েছি জল…প্রার্থনার প্রহরে তোমারে এনে দেবে তার স্রোতধারা। নদীর এপারে বসে আমি তারা গুনি-ঢেউ গুনি-জলপিপি গুনতে গুনতে মনে হয় ডুবে গেলে তুমি আবার ওপারে ফিরে যাবে…সাতার কি ভুলে গেছো? 

১১,পথ ভুলে পড়ে আছি গুলশানে কোথাও যাবার কথা ছিলো সেই কবে থেকে কোনো এক সনাতন গাছ কালীর ছায়ায় ঝড়-বৃষ্টি-রোদ্দুরের স্মৃতি ভুলে কাটিয়ে দেবার কথা ছিলো জলমহাল আর নোনা জল ভালোবেসে, অথচ অবিবেচক পড়ে আছি পথ ভুলে গুলশানে শহরের সকল ঝা চকচকে দেয়ালে দেয়ালে ঘেরা গোলকধাঁধাঁর দিক খুঁজে পেতে ঘাম ঝরে; তবু পথ মুখ বের করে করুনারে দেখা দেয় নাই… 

১২,আমি কি পোকার মতো ঢুকে যেতে চাই! তারপর ঘরের গন্ধ পাল্টে দিয়ে নিজের খুশিতে ভেবে নিতে পারি ঘরখানা আমার? সে যদি নিজের ঘরে ছুঁয়ে থাকে অন্য কোনো দুঃখ আমি বরং অপেক্ষা করি দূরে থেকে কখনো সুযোগ মিলে গেলে দুঃখের কিছুটা ভাগ চেয়ে নেয়া যাবে 

১৩,.না ঘুমানোর আয়োজনে বিছানা সাজাই; তারপর রাতভর কিলবিল পোকার মতোন আলোর রেখায় এবাড়ি-ওবাড়ি… 

রোমান্টিক স্ট্যাটাস
রোমান্টিক স্ট্যাটাস

আরও দেখুনঃ সেরা ফুলের ছবি | ফুলের ছবি ও পিকচার ডাউনলোড

১৪,সূর্য্যটাকে ডুবে যেতে দেখলেই কেমন অসহায় লাগে। মনে হয় ঘরে ফিরে যেতে হবে। ঘর মানে বেকার বিছানা, ঘামে আর ঘুমে মিলেমিশে কাদা খোঁচা;যেখানে অনেক ফুটপ্রিন্ট ফুটে থাকে… পরিচয়হীন সব পায়েরা কখনো চলে গেছে কাদা পার হয়ে দূর ইতিহাসে।

১৫,দেয়ালে ঠেকেছে পিঠ, তাহলে দেয়াল বনে যাই পেছনে ছুটছিলো যারা, তারা এসে ফিরে যাবে আমায় না পেয়ে। কেউ কখনো দেয়াল খুঁজে বেড়িয়ে সময় নষ্ট করতে চায় না; দেয়াল বাঁধায় আটকে পড়া শিকারের খোঁজে কেউ আসে, কেউ আসে দেয়ালের ওপারে কল্পিত পথ যদি পাওয়া যায় টপকে গেলে, এই ভাবনায়… 

১৬,যেহেতু বৃষ্টির দেখা নাই তাই মেঘ দেখে দেখে ভাবি একদিন জলের উচ্ছ্বাসে মুখ রেখে স্বপ্নপূরণ করে নেয়া যাবে, দেখো! 

১৭,সরীসৃপের মতোন ঠাণ্ডা তোমাকে জড়িয়ে ঘুম দেয়া যেতো এই গরমের রাতে.. 

১৮,সন্ধ্যা কাটানোর জন্য মানুষের খোঁজে নামার মতোন বিরক্তিকর বয়সে পৌছে যেতে হয় ধীরে ধীরে মানুষেরা খুব বেশি খুঁজবেনা ব্যস্ততাকে… তার চেয়ে ভালো ব্যস্ত না থাকার অভিনয়, নিজেকে সুলভ করে দেয়া… 

১৯,আমি নষ্ট করেছি সময়, এখন সময় নষ্ট করছে আমায়—— ়

২০,চন্দ্রের যা কলঙ্ক সেটা কেবল মুখের উপরে, তার জ্যোৎস্নায় কোনো দাগ পড়ে না।—- 

২১,মৃত্যুর যন্ত্রণার চেয়ে বিরহের যন্ত্রণা যে কতো কঠিন, কতো ভয়ানক তা একমাত্র ভুক্তভুগিই অনুভব করতে পারে 

২২,বিশ্বাস করুন,আমি কবি হতে আসিনি,আমি নেতা হতে আসি নি-আমি প্রেম দিতে এসেছিলাম,প্রেম পেতে এসেছিলাম-সে প্রেম পেলামনা বলে আমি এই প্রেমহীন নীরস পৃথিবী থেকে নীরব অভিমানে চির দিনের জন্য বিদায় নিলাম। 

২৩,জীবন হলো পেন্সিলে আঁকা এক ছবির নাম, যার কোনো অংশ রাবার দিয়ে মুছে ফেলা যায় না। 

২৪,ছেলেরা ভালোবাসার অভিনয় করতে করতে যে কখন সত্যি সত্যি ভালোবেসে ফেলে তারা তা নিজেও জানেনা … মেয়েরা সত্যিকার ভালোবাসতে বাসতে যে কখন অভিনয় শুরু করে তারা তা নিজেও জানেনা ।

২৫,বিরক্তিকর কোনো মানুষ ফ্রড হতে পারে না । পৃথিবী তে ফ্রড মাত্র ই ইন্টারেস্টিং ক্যারেক্টার হয় । 

২৬,প্রেম হয় শুধু দেখা ও চোখের ভাল লাগা থেকে, রাগ থেকে প্রেম হয়, ঘৃণা থেকে প্রেম হয়, প্রেম হয় অপমান থেকে, এমনকি প্রেম হয় লজ্জা থেকেও। প্রেম আসলে লুকিয়ে আছে মানবসম্প্রদায়ের প্রতিটি ক্রোমসমে। একটু সুযোগ পেলেই সে জেগে উঠে। 

২৭,একজন সুন্দর, আকর্ষণীয় রমণীর পাশে ২ ঘণ্টা বসে থাকুন, দেখবেন সময় উড়ে চলে গেছে!! এবার গ্রীষ্মের গরমের মাঝে রাস্তায় ২ মিনিট হাঁটুন, মনে হবে আপনি অনন্তকাল ধরে হাঁটছেন!! 

২৮,আমি সবসময়ই পরীক্ষার বিরোধীতা করি। পরীক্ষা শিক্ষার্থীদের জানার আগ্রহকে মেরে ফেলে। শিক্ষার্থীর জীবনে কোন ভাবেই দুইটির বেশি পরীক্ষা দেওয়া উচিত নয়। আমি হলে শিক্ষার্থীদের জন্য সেমিনার আয়োজন করতাম। শিক্ষার্থীরা যদি মনোযোগ দিয়ে শুনতো তা হলেই আমি তাদের ডিপ্লোমা দিয়ে দিতাম। 

২৯,আমি নষ্ট করেছি সময়, এখন সময় নষ্ট করছে আমায়——দুর্ভাগ্যবান তারাই যাদের প্রকৃত বন্ধু নেই। ়

৩০,স্বপ্ন সেটা নয় , যেটা মানুষ ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে দেখে সপ্ন সেটাই যেটা পূরণের প্রত্যাশা মানুষকে ঘুমাতে দেয় না 

৩১,আমি বিশ্বের সব ইহুদী মারতাম, কিন্তু কিছু ইহুদী বাঁচিয়ে রাখলাম যাতে পুরো বিশ্ব বুঝতে পারে যে কেন আমি তাদের মেরেছি 

৩২,যখন তুমি মারা যাবা তখন তোমার ব্যাংকে যে পরিমান টাকা থাকবে সেটা হল ওই টাকা যা তুমি তোমার প্রয়োজনের চেয়ে অতিরিক্ত কাজ করে আয় করেছ….. 

৩৩,ভীরুরা তাদের প্রকৃত মৃত্যুর আগেই বহুবার মরে, কিন্তূ সাহসীরা জীবনে মাত্র একবারই মৃত্যুর স্বাদ গ্রহণ করে থাকে | 

৩৪,মানুষ কে ঘৃনা করার অপরাধে অতীতে কাউকে কখনো মৃত্যুদন্ড দেয়া হয়নি। কিন্তু মানুষ কে ভালবাসার অপরাধে অতীতে অনেককেই হত্যা করা হয়েছে, ভবিষ্যতেও হয়তো হবে !! 

৩৫,পাখি উড়ে গেলেও পলক ফেলে যায় আর মানুষ চলে গেলে ফেলে রেখে যায় স্মৃতি । 

৩৬,এই পৃথিবীতে প্রিয় মানুষগুলোকে ছাড়া বেঁচে থাকাটা কষ্টকর কিন্তু অসম্ভব কিছু নয়। কারো জন্য কারো জীবন থেমে থাকে না, জীবন তার মতই প্রবাহিত হবে। তাই যেটা ছিল না সেটা না পাওয়ায় থাক, সব পেয়ে গেলে জীবনটাও একঘেয়েমি হয়ে যায়। মনে রেখো পৃথিবীর সকল কষ্টই ক্ষণস্থায়ী। 

৩৭,পৃথিবীতে আনন্দ এবং দুঃখ সব সময় থাকবে সমান সমান। বিজ্ঞানের ভাষায়-Conservation of আনন্দ। একজন কেউ চরম আনন্দ পেলে,অন্য জনকে চরম দুঃখ পেতে হবে। 

৩৮,কাউকে প্রচন্ডভাবে ভালবাসার মধ্যে এক ধরনের দুর্বলতা আছে। নিজেকে তখন তুচ্ছ এবং সামান্য মনে হয়। এই ব্যাপারটা নিজেকে ছোট করে দেয় 

৩৯,নিজের সার্টিফিকেট নিজেই দিও না।খেয়াল করে দেখ যে, সবাই তোমাকে কি ভাবে।তাদের কাছেই সার্টিফিকেট নাও।নিজের সমালোচনা করেই দেখ না,শুদ্ধ হওয়া কঠিন কিছু না। ়

৪০,লাইফে কিছু ফিল্মি ব্যাপার থাকার উচিত ছিল। এই যেমন কাউকে খুব মিস করছি আর সে বুঝে গেল ব্যাপারটা! মুখে বলা লাগলো না… এটা আসলে খুব পেইনফুল। মিসও করছি আবার বলতেও ইচ্ছা হচ্ছে না 

৪১,মেয়েদের তৃতীয় নয়ন থাকে। এই নয়নে সে প্রেমে পড়া বিষয়টি চট করে বুঝে ফেলে। পুরুষের খারাপ দৃষ্টিও বুঝে। মুরুব্বি কোন মানুষ মা- মা বলেপিঠে হাত বুলাচ্ছে – সেই স্পর্শ থেকেও সে বুঝে ফেলে মা ডাকের অংশে ভেজাল কতটুকু আছে। 

৪২,ছেলে এবং মেয়ে বন্ধু হতে পারে, কিন্তু তারা অবশ্যই একে অপরের প্রেমে পড়বে। হয়ত খুবই অল্প সময়ের জন্য, অথবা ভুল সময়ে। কিংবা খুবই দেরিতে, আর না হয় সব সময়ের জন্য। তবে প্রেমে তারা পড়বেই.. 

৪৩,যদি নাই বুঝতে পারি বেঁচে আছি তবে জীবনের কি মূল্য ? সব সময় নিজেকে বা অন্যকে আনন্দে রেখে দেখই না… বাহ্, জীবনটাতো মন্দ নয় 

৪৪,আমার হারিয়ে ফেলার কেউ নেই, কাজেই খুঁজে পাওয়ারও কেউ নেই, আমি মাঝে মাঝে নিজেকে হারিয়ে ফেলি, আবার খুঁজে পাই ! 

৪৫,মানুষের পুরো জীবনটা হচ্ছে একটা সরল অংক ।যতই দিন যাচ্ছে,ততই আমরা তার সমাধানের দিকে যাচ্ছি । 

৪৬,পৃথিবীতে এমন কোনো কাজ নেই যা করলে জীবন ব্যার্থ হয়। জীবন এতই বড় ব্যাপার যে একে ব্যার্থ করা খুবই কঠিন 

৪৭,যদি আমার কাছে একটি গাছ কাটার জন্য ৮ ঘণ্টা সময় থাকে।। তাহলে আমি কুড়াল ধার করার জন্য ৭ঘণ্টা ব্যায় করব 

৪৮,যে জাতি তার বাচ্চাদের বিড়ালের ভয় দেখিয়ে ঘুম পাড়ায়, তারা সিংহের সাথে লড়াই করা কিভাবে শিখবে? যারা পানিতে ডুবে যাওয়ার ভয়ে তার সন্তানকে ডোবায় নামতে দেন না, কিভাবে সে সন্তান আটলান্টিক পাড়ি দিবে? 

৪৯, আমরা বেচেথাকি শুধুমাত্র বিভিন্ন লক্ষ পুরনের জন্য। একটা লক্ষ পুরণ হয়ে গেলে আর একট লক্ষ এসে সামনে হাজির হয়। যখন ভাবতে বসি তখন খুজে পাই সব লক্ষ্য পুরণ ই অলাভজনক। আমি যত কষ্ট করে আজকের এই অবস্থায় এসেছি তা অনেক পাওয়া কিন্তু এরজন্য আমাকে যা যা ছাড়তে হয়েছে তার মূল্য এর চেয়ে অনেক বেশী। সে জন্য মনেহয় বেচে থাকাটা শুধুমাত্র মরে যাওয়ার জন্য অপেক্ষা করা। লক্ষ অর্জণ মাঝখানে শুধু শুধু বশে না থেকে কিছু করা। বসে বসে মরার অপেক্ষা তো করা যায় না তাই। ়

রোমান্টিক স্ট্যাটাস বাংলা

রোমান্টিক স্ট্যাটাস
রোমান্টিক স্ট্যাটাস

আরও দেখুনঃ হাত কাটা পিক | ছেলে ও মেয়েদের হাত কাটা রক্তের ছবি ও পিকচার

৫০,আমি লাইফ থেকে যেই বিষয়টা শিখতে পেরেছি তা হল যেচে কাউকে উপকার করতে নাই অর্থাৎ কেউ না চাইলে তাকে আগ বাড়িয়ে উপকার করতে নেই তাহলে আপনি নিজেই বিপদে পরবেন … তাছাড়া আপনি নিজ থেকে আগ বাড়িয়ে যতো উপকার করেন না কেন সেইটা সে মনে রাখবে না এবং মূল্যও দিবে না … বরঞ্চ তার প্রয়োজনে যে উপকার করবেন সেটাই সে সারা জীবন মনে রাখবে … ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করবে । আর তার প্রয়োজনে যদি কোন কারণে আপনি তাকে সহযোগিতা করতে না পারেন তাহলে সেটাই সারা জীবন মনে রাখবে …সেইটাই আপনাকে সবসময় দেখিয়ে দিবে এবং আপনার পূর্বের অসংখ্য আগ বাড়িয়ে উপকার সে ভুলে যাবে … এটাই স্বাভাবিক [এই ব্যাপারটা সবার ক্ষেত্রে নয় তবে অধিকাংশ মানুষের ক্ষেত্রে ঘটে] 

৫১, কাউকে দৌড়ানি দিতে হলে প্রথমে নিজে ভাল করে শিখে নিতে হয় কিভাবে দৌড়াতে হয়, তা না হলে দৌড়ানি দিতে গিয়ে দৌড়ানি খেয়ে আসার সম্ভবনা থাকে । 

৫২, যা হয়েছে তা ভালই হয়েছে ,যা হচ্ছে তা ভালই হচ্ছে, যা হবে তাও ভালই হবে।তোমার কি হারিয়েছে, যে তুমি কাঁদছ ? তুমি কি নিয়ে এসেছিলে, যা তুমি হারিয়েছ? তুমি কি সৃষ্টি করেছ, যা নষ্ট হয়ে গেছে? তুমি যা নিয়েছ, এখান থেকেই নিয়েছ, যা দিয়েছ এখানেই দিয়েছ। তোমার আজ যা আছে ,কাল তা অন্যকারো ছিল,পরশু সেটা অন্যকারো হয়ে যাবে।পরিবর্তনই সংসার এর নিয়ম । 

৫৩,কয়লা ধুইলে কয়লার ময়লা যাবেনা ঠিকই কিন্তু কয়লা ক্ষয়েক্ষয়ে নিঃশেষ হওয়ার সুযোগ থাকে। আর আমাদের সবার সে সুযোগটা নেয়া উচিত। 

৫৪,মানুষের মৃত্যু দিন হচ্ছে তার সত্যিকার জন্মদিন। কারণ, জন্ম থেকে শুরু হওয়া সার্কিটটা সম্পূর্ণ হয় মৃত্যুতে এসে। মৃত্যুর পর একজন মানুষের পোর্টেটটা সামনে দৃশ্যমান হয়। তাই মৃত্যুই তার আসল জন্মদিন। 

৫৫,মৃত্যুদণ্ড খুবই নিম্নমানের একটা শাস্তি। কারণ সেটা অপরাধীকে মুক্তি দেয় আর শাস্তি দেয় কিছু নিরপরাধ মানুষদের( যেমনমা,বাবা,ভাই,বোন, বউ, ছেলেমেয়ে আত্মীয়স্বজন। 

৫৬,জীবন বোঝার সবচেয়ে বড় উপায় হচ্ছে জীবনকে বাঁচিয়ে রাখো, নিজের মতো করে জীবনটা যাপন করো। 

৫৭,পূর্ব পরিকল্পনা করে সময় নষ্ট না করে। যখনকার পরিকল্পনা তখন নিতে হবে … কেননা কোন ঘটনা যে পূর্বপরিকল্পনা মত ঘটবেতার তো কোন নিয়শ্চয়তা নেই তাহলে কেন আমি পূর্বপরিকল্পনা করে সময় এবং ব্রেন দুটোরই অপচয় করব। 

৫৮,কেউ যদি আপনার জীবনে না আসে হয়তো আপনি একটুও কষ্ট পাবেন না ..!! কিন্তূ কেউ যখন আপনার জীবনে এসে আবার চলে যাবে ,তখন আপনার কাছে শুধু কষ্ট ছাড়া আর কিছুই থাকবে না 

৫৯,যদি কারো ভালোবাসা না পাও তবে ভেঙ্গে পড়োনা, তুমি অপেক্ষা করতে পারো, নিশ্চয় অাল্লাহ্ তোমার জন্য কাউকে পাঠিয়েছে এবং সঠিক সময় তুমি তাকে খুজে পাবে। ়

৬০,এটা নিষ্টুর হলেও সত্য! মানুষ আর্থিক বা প্রতিভার দ্বারা যখন প্রতিষ্ঠিত স্রকৃতি লাভ পায়, তখন সে সকলের কাছে গ্রহনযোগ্য হিসেবে বিবেচিত হয়. 

৬১,যে একবার মনে জায়গা করে নিয়েছে তাকে কখনো মন থেকে তাড়িয়ে দেয়া যায় না। মনের মাঝে সে চিরকালের জন্যই থেকে যায়। হয়তো সময়ের ব্যবধানে অন্য কেউ অনেকটা জায়গা দখল করে ফেলে কিন্তু…………… কোন না কোন সময় সেই পুরনো দখলদারীর কথা মনে পরবেই 

ভালোবাসার রোমান্টিক স্ট্যাটাস

ভালোবাসার রোমান্টিক স্ট্যাটাস
রোমান্টিক স্ট্যাটাস

আরও দেখুনঃ মেয়েদের ছবি | মেয়েদের পিকচার ছবি

৬২,একটাই পৃথিবী একটাই গল্প । ঐ একটা গল্পের ভেতরের প্রত্যেকটা মানুষের জীবনের একেক টা খন্ড খন্ড ছোট গল্প.. 

৬৩,সম্পর্ক গুলো যেন কেমন হয়তো আকাশের মন টা যেমন । এই ভালবাসা এই অভিমান এই কাছে আসা এই ছবি-গান । কখনো ঝগড়া কখনো মারামারি কখনো আহ্লাদ কখনো জড়াজড়ি । কখনোবা দূরে কখনোবা বহুদূরে 

৬৪,বল্টু: বাবা বাবা! ভাইয়া না একটা পোকা খেয়ে ফেলেছে। বাবা: বলিস কি? তাহলে তো সর্বনাশ। বল্টু: বাবা চিন্তা করো না, আমি ভাইয়াকে পোকা মারার বিষ খাইয়ে দিয়েছি। 

৬৫,শিক্ষক:-কি পরা ছিলো গতকাল..?? বল্টু:-ভূগোল স্যার____ শিক্ষক:-বলতো গাই-বান্ধ্যা কোথায়..??? বল্টু-মাঠে স্যার…!!! কেন আপনার কিছু খাইছে নাকি…???? ওরে কেউ আমারে মাইরালা 

৬৬,একদা একদিন!! ছেলেটি মেয়েকে PROPOSE করলো।। মেয়েটি মানা করে দিলো।। ছেলেঃ রাজি না হলে ৩০ দিন তোমার বাসার সামনে দাঁড়িয়ে থাকবো!! মেয়েটি ৩০তম দিনে রাজি হয়ে ছেলেটিকে বলল, ,I love U too!!,, ছেলে উত্তর দিলোঃ যাও ভাগো!! তোমার পাশের বাড়ির মেয়েটার সাথে প্রেম হয়ে গেছে! 

৬৭,রাত ১২টায় গার্লফ্রেন্ড তার বয়ফ্রেন্ডকে ফোন করে বললঃ আমার বাড়িতে এখন কেউ নাই। বয়ফ্রেন্ড খুশি মনে লাফাইতে লাফাইতে গার্লফ্রেন্ড এর বাড়িতে গিয়ে দেখলোঃ . . . আসলেই বাড়িতে কেউ নাই। দরজায় তালা মারা। 

৬৮,স্ট্যাটাসের যে কমেন্টগুলো চিরকল্যাণকর, অর্ধেক তার করিবে নারী, অর্ধেক তার নর। 

৬৯,আমাকে একা বসিয়ে রেখে ওরা দুজন কী সুন্দর চাঁদে নেমে গেল! সব বিরোধীদলীয় ষড়যন্ত্র ়

৭০,বাংলা-বিহার-ওড়িশ্যার মহান অধিপতির কমেন্ট আমি তোমায় ভুলিনি। তুমি বলেছিলে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানিকে প্রশ্রয় দিয়ো না, সুযোগ পেলেই ওরা অ্যাকাউন্ট কেড়ে নেবে। 

৭১, খুবই চিন্তিত, পূর্ণিমার চাঁদ যদি ঝলসানো রুটি হয়, তাহলে ডিমভাজি/শিক-কাবাব কোনটা? 

৭২,অসম্ভব,বলে কোনো শব্দ আমার অভিধানে নেই। কারণ, অভিধানের ওই পাতাটা উইপোকা অনেক আগেই খেয়ে ফেলেছে। 

৭৩,বৈদ্যুতিক বাতি আবিষ্কার করলাম। তবে সুদূর ভবিষ্যতে বাংলাদেশে এটা কোনো কাজেই আসবে না। নাহ্, আমাকে আরও ভালো কিছু আবিষ্কার করতে হবে। 

৭৪,রেডিও আবিষ্কার করলাম আমি, আর নাম হলো মার্কনির? কে আছিস? মার্কনিরে মার কনি। 

৭৫, বিপ্লবী সাথি ও বন্ধুগণ, মাথায় টাক পড়ে গেছে। এটাকে আমার নতুন হেয়ার স্টাইল ভাববেন না। কোনো তাক লাগানো সমাধান থাকলে আওয়াজ দিন। 

সেরা রোমান্টিক স্ট্যাটাস

ভালোবাসার রোমান্টিক স্ট্যাটাস
রোমান্টিক স্ট্যাটাস

৭৬,প্রাঞ্জলতা হচ্ছে স্ট্যাটাসের সবচেয়ে বড় গুণ। সহজ কথায় স্ট্যাটাস রচনা করা গেলে কঠিন কথার প্রয়োজন কী? 

৭৭,অনেকেই মর্যাদা (স্ট্যাটাস) এবং মন্তব্য (কমেন্ট) লিখিতে গিয়া সাধু ও চলিত ভাষার মিশ্রণ করিয়া থাকেন। ইহা অন্যায়, খুবই অন্যায়। অ্যাম রিয়েলি শকড! 

৭৮,এই মাত্র  ,,মোনালিসা,,নামের একটা ছবি এঁকে শেষ করলাম। এই যা! চোখের ভ্রু আঁকতে ভুলে গেছি। 

৭৯,পাকা দুই ক্রোশ পথ হাঁটিয়া সাইবার ক্যাফেতে ফেসবুক ব্যবহার করিতে আসি। তোমরা আমার স্ট্যাটাসে একটি হইলেও কমেন্ট ফেলিয়ো। ়

৮০,নিঃসঙ্গতাকে সাথী করে চলতে চলতে একদিন অপ্রত্যাশিত ভাবেই তোমার সাথে পরিচয়। অনেকটাই অজানা, অচেনা তবু যেন কত পরিচিত। ভাবলাম এই বুঝি আমার ঠিকানা, এখানেই শেষ পথচলা। এখন শুধু ভালবাসার ছায়ায় বিশ্রাম, অবিরাম বিশ্রাম। কিন্তু সব ভাবনা কি সত্যি হয়?? একদিন কাছে এসেও কাছের মানুষ হারিয়ে যায়। আবার এই আমি সেই আমি হয়ে যাই। অসহায়,নিঃসঙ্গ,বিপন্ন। যে যায় সেকি ফিরে আসে??? 

৮১,আজকাল একবার ভাড়া দেওয়ার পরও লোকাল বাসের কন্ডাক্টর এত বিনয়ী কন্ঠ অথচ গভীর আত্ববিশ্বাষের সাথে আরো কয়েকবার ভাড়া চায়, আমার ভুলে যেতে ইচ্ছে হয় একবার ভাড়া দিসি, মনে হয় এক যাত্রায় বার বার ভাড়া দিতে পারতাম 

৮২,হারিয়ে গেছ অনেক আগেই, তবে আজ অনেক দূরে চলে যাচ্ছ। যাও কিন্তু ফিরে এসো আবার আমার কাছে না, তবে তোমার দেশে 

৮৩,কিছু কিছু সিরিয়াস সময়ে সিরিয়াস ভাব নিয়ে থাকতে হয়। আমিও সিরিয়াস ভাব নিয়ে সিরিয়াস কিছু ঘটার অপেক্ষা করছিলাম। সিরিয়াস ভাবটা ঠিক মতো নেওয়া হচ্ছিল না। উলটা, যার সাথে ভাব নিবো এই সুযোগে সে ভাবের ডগাতে বসবাস শুরু দিল । frown emoticon বিষয়টা দুঃখজনক !! 

৮৪,ঘড়ির কাটায় সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টা থেকে শুরু হল অবিরাম বৃষ্টি, এখনো বৃষ্টি হচ্ছে – প্রচন্ড বৃষ্টি, মনে হচ্ছে পুরো শহরটা যেন ভাসিয়ে নিয়ে যাবে। ভাসিয়ে নিয়ে গেলও সত্যি সাথে আমার মনকেও, আমাকেও। ভেসে ভেসে কই আসলাম তাই এখন বোঝার চেষ্টা করছি। আশার কথা একটাই যে অনেক বছর পর শ্রাবণের চমৎকার একটা সন্ধ্যা নিজের মত করে উপভোগ করার সুযোগ পেলাম । 

৮৫,ভাবছিলাম সিরিয়াস কিছু লিখে এক্কেবারে ফেসবুক কাঁপায়ে দিবো। তারপরে দেখলাম ঘটে আসলে কিচ্ছু নাই! তাই সিদ্ধান্ত পরিবরতন করলাম। আজকে আসলে স্কুল লাইফের কথা মনে পরছে অনেক। ছোট বেলার সেই সব নির্ভেজাল কাহিনী। 

৮৬,মনটা মাঝে মাঝে কি বুঝাতে চায়? বুঝি না। কথাগুলা বড়ই অস্পষ্ট, অসচ্ছ। আর আমি বরাবরই অসতর্ক, অমনযোগী। 

৮৭,প্রিয় একটা মানুষ, প্রিয় কিছু কথা, প্রিয় কিছু মুহুর্ত।এই প্রথমবারের মত ঝগড়াবিহীন সে আর আমি। 

৮৮,নদীটা একসাথে পাড়ি দেয়ার মত জীবনটাও একসাথেই পাড়ি দেয়া যেত। তুমি, আমি, আর আমরা সবাই। 

৮৯.এদেশে বিদেশী সংস্কৃতির আগ্রাসন বরাবরই চোখে পরার মত। Halloween তাতে নতুন মাত্রা যোগ করল বৈকি। BTW, Happy HALLOWEEN ়

৯০,আলোচিত ইস্যুতে আমি সবসময়ই নিরব। তার চেয়েও বড় কথা, আমি অন্ধকারকে ভয় পাই। অশুভকে ডেকে আনে অন্ধকার। 

৯১,কে বলে চাঁদ কে স্পর্শ করা যায়না এই যে!! ছুঁয়ে দিলাম। 

৯২, মনে হয় শুধু আমি আর শুধু তুমি আর ঐ আকাশের পউষ নিরবতা,, রাত্রির নির্জনযাত্রী তারকার কানে কানে কতকাল কহিয়াছি আধো আধো কথা!!

৯৩,তোমাকে ভেবে পৃথিবী আমার অদেখা তবু একে যাই আমার ভেতর শুধু তুমি আর তো কিছু পায়নি ঠাই……

৯৪, মনের মধ্যে প্রবহমান ঝর্ণা এনে দিল ভালবাসার বন্যা। ভাসিয়ে নিল বিস্মৃতির ভেলা শুরু হল ভালবাসার খেলা।

৯৫,তুমি আমার রঙ্গিন শপ্ন, শিল্পীর রঙ্গে ছবি । তুমি আমার চাঁদের আলো, সকাল বেলার রবি । তুমি আমার নদীর মাঝে একটি মাত্র কুল । তুমি আমার ভালবাসার শিউলি বকুলফুল ।

৯৬,একটু যদি তাকাও তুমি মেঘগুলো হয় সোনা আকাশ খুলে বসে আছি তাও কেন দেখছ না একই আকাশ মাথার উপর এক কেন ভাবছ না আকাশ খুলে বসে আছি তাও কেন দেখছ না

৯৭,শুধুমাত্র তোমার হাসিটা দেখার জন্যে কয়েক হাজার বছর এক নিমিষেই বেঁচে থাকা যায়। হোক সে হাসির কারন অন্য কেউ…তবুও। 

৯৮,তোমার জন্য স্বপ্ন দেখি তুমি আসবে বলে, তোমার জন্য অপেক্ষায় আছি তুমি ভালোবাসবে বলে।

৯৯,ভালবাসা মানে আবেগের পাগলামি, ভালোবাসা মানে কিছুটা দুষ্টামি । ভালোবাসা মানে শুধু কল্পনাতে ডুবে থাকা,, ভালোবাসা মানে অন্যের মাঝে নিজের ছায়া দেখা ।

১০০,হৃদযের সীমানায় রেখেছি যারে, হয়নি বলা আজো ভালবাসি তারে। ভালবাসি বলতে গিয়ে ফিরে ফিরে আশি। কি করে বুঝাবো তারে আমি কতটা ভালোবাসি?

আবেগী রোমান্টিক স্ট্যাটাস

ভালোবাসার রোমান্টিক স্ট্যাটাস
রোমান্টিক স্ট্যাটাস

আশা করি আমাদের আজকের রোমান্টিক স্ট্যাটাস পোস্ট থেকে রোমান্টিক স্ট্যাটাস বাংলা, সেরা রোমান্টিক স্ট্যাটাস, ভালোবাসার রোমান্টিক স্ট্যাটাস, চোখ নিয়ে রোমান্টিক স্ট্যাটাস, বৃষ্টি নিয়ে রোমান্টিক স্ট্যাটাস, ইসলামিক রোমান্টিক স্ট্যাটাস, মান্টিক স্ট্যাটাস ভিডিও, রোমান্টিক স্ট্যাটাস গান, রোমান্টিক স্ট্যাটাস ক্যাপশন, romantic status bangla fb, sad romantic status bangla, সংগ্রহ করতে পেরেছেন।