بِسْمِ اللهِ الرَّحْمنِ الرَّحِيمِ
শুরু করছি আল্লাহর নামে যিনি পরম করুণাময়, অতি দয়ালু

هَلْ أَتَاكَ حَدِيثُ الْغَاشِيَةِ
আপনার কাছে আচ্ছন্নকারী কেয়ামতের বৃত্তান্ত পৌঁছেছে কি?(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:১ )

وُجُوهٌ يَوْمَئِذٍ خَاشِعَةٌ
অনেক মুখমন্ডল সেদিন হবে লাঞ্ছিত,(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:২ )

عَامِلَةٌ نَّاصِبَةٌ
ক্লিষ্ট, ক্লান্ত।(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:৩ )

আরোঃ বাংলা উচ্চারণ সহ

تَصْلَى نَارًا حَامِيَةً
তারা জ্বলন্ত আগুনে পতিত হবে।(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:৪ )

تُسْقَى مِنْ عَيْنٍ آنِيَةٍ
তাদেরকে ফুটন্ত নহর থেকে পান করানো হবে।(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:৫ )

لَّيْسَ لَهُمْ طَعَامٌ إِلَّا مِن ضَرِيعٍ
কন্টকপূর্ণ ঝাড় ব্যতীত তাদের জন্যে কোন খাদ্য নেই।(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:৬ )

لَا يُسْمِنُ وَلَا يُغْنِي مِن جُوعٍ
এটা তাদেরকে পুষ্ট করবে না এবং ক্ষুধায়ও উপকার করবে না।(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:৭ )

وُجُوهٌ يَوْمَئِذٍ نَّاعِمَةٌ
অনেক মুখমন্ডল সেদিন হবে, সজীব,(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:৮ )

لِسَعْيِهَا رَاضِيَةٌ
তাদের কর্মের কারণে সন্তুষ্ট।(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:৯ )

فِي جَنَّةٍ عَالِيَةٍ
তারা থাকবে, সুউচ্চ জান্নাতে।(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:১০ )

لَّا تَسْمَعُ فِيهَا لَاغِيَةً
তথায় শুনবে না কোন অসার কথাবার্তা।(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:১১ )

فِيهَا عَيْنٌ جَارِيَةٌ
তথায় থাকবে প্রবাহিত ঝরণা।(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:১২ )

فِيهَا سُرُرٌ مَّرْفُوعَةٌ
তথায় থাকবে উন্নত সুসজ্জিত আসন।(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:১৩ )

وَأَكْوَابٌ مَّوْضُوعَةٌ
এবং সংরক্ষিত পানপাত্র(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:১৪ )

وَنَمَارِقُ مَصْفُوفَةٌ
এবং সারি সারি গালিচা(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:১৫ )

وَزَرَابِيُّ مَبْثُوثَةٌ
এবং বিস্তৃত বিছানো কার্পেট।(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:১৬ )

أَفَلَا يَنظُرُونَ إِلَى الْإِبِلِ كَيْفَ خُلِقَتْ
তারা কি উষ্ট্রের প্রতি লক্ষ্য করে না যে, তা কিভাবে সৃষ্টি করা হয়েছে?(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:১৭ )

وَإِلَى السَّمَاء كَيْفَ رُفِعَتْ
এবং আকাশের প্রতি লক্ষ্য করে না যে, তা কিভাবে উচ্চ করা হয়েছে?(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:১৮ )

وَإِلَى الْجِبَالِ كَيْفَ نُصِبَتْ
এবং পাহাড়ের দিকে যে, তা কিভাবে স্থাপন করা হয়েছে?(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:১৯ )

وَإِلَى الْأَرْضِ كَيْفَ سُطِحَتْ
এবং পৃথিবীর দিকে যে, তা কিভাবে সমতল বিছানো হয়েছে?(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:২০ )

فَذَكِّرْ إِنَّمَا أَنتَ مُذَكِّرٌ
অতএব, আপনি উপদেশ দিন, আপনি তো কেবল একজন উপদেশদাতা,(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:২১ )

لَّسْتَ عَلَيْهِم بِمُصَيْطِرٍ
আপনি তাদের শাসক নন,(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:২২ )

إِلَّا مَن تَوَلَّى وَكَفَرَ
কিন্তু যে মুখ ফিরিয়ে নেয় ও কাফের হয়ে যায়,(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:২৩ )

فَيُعَذِّبُهُ اللَّهُ الْعَذَابَ الْأَكْبَرَ
আল্লাহ তাকে মহা আযাব দেবেন।(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:২৪ )

إِنَّ إِلَيْنَا إِيَابَهُمْ
নিশ্চয় তাদের প্রত্যাবর্তন আমারই নিকট,(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:২৫ )

ثُمَّ إِنَّ عَلَيْنَا حِسَابَهُمْ
অতঃপর তাদের হিসাব-নিকাশ আমারই দায়িত্ব।(সূরা গাশিয়াহ ৮৮:২৬ )