চতুর্ভুজ কাকে বলে? আজ আমরা চতুর্ভুজ সম্পর্কে বিস্তারিত জানব, আরওঃ সাধারণ জ্ঞান

আরওঃ গ্রাজুয়েট অর্থ কি?

চতুর্ভুজ কাকে বলে?

চারটি রেখাংশ দ্বারা আবদ্ধ চিত্রকে চতুর্ভুজ বলে। আবার বহুভুজের একটি রূপকে বলা হয় চতুর্ভুজ।

চতুর্ভুজ কয় প্রকার ও কি কি?

ছেদ বা ছেদকের ওপর ভিত্তি করে সাধারণত চতুর্ভুজকে দুই ভাগে ভাগ করা হয় ।যেমন:

  • সরল চতুর্ভুজ
  • জটিল চতুর্ভুজ

সরল চতুর্ভুজঃ যে চতুর্ভুজের একটি বাহু অন্য কোন বাহুর ছেদক হয় না বা অন্য কোন বাহু কে শীর্ষ ব্যতীত অন্য কোন বিন্দুতে ছেদ করে না তাকে সরল চতুর্ভুজ বলা হয়।

জটিল চতুর্ভুজঃ যে চতুর্ভুজের একটি বাহু অন্য কোনো বাহুর ছেদক হয় বা অন্য কোন বাহুর শীর্ষ ব্যতীত কোন বিন্দু তে ছেদ করে তাকে জটিল চতুর্ভুজ বলে। এই চতুর্ভুজের সবগুলো কোণের পরিমাপ ৭২০ ডিগ্রি।

আবার সরল চতুর্ভুজ কে দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে। যেমন:

  • উত্তল চতুর্ভুজ 
  • অবতল চতুর্ভুজ

উত্তল চতুর্ভুজঃ যে চতুর্ভুজের প্রতিটি অন্তঃস্থ কোণের পরিমাপ ১৮০° চেয়ে ছোট এবং দুই কণ চতুর্ভুজের অভ্যন্তরে অবস্থিত থাকে উত্তল চতুর্ভুজ বলে।

অবতল চতুর্ভুজঃ যে চতুর্ভুজের প্রত্যেকটির অন্তঃস্থ কোণের পরিমাপ ১৮০ ডিগ্রি অপেক্ষা বড় এবং ৩৬০ ডিগ্রি ছোট ও দুইটি কর্ণ আরেকটি করলে চতুর্ভুজের বাইরে অবস্থিত থাকে তাকে অবতল চতুর্ভুজ বলে।

উত্তম চতুর্ভুজ এর কিছু বৈশিষ্ট্য নিচে দেয়া হল:

  • চারটি বাহু
  • কৌণিক বিন্দু
  • দুইটি কর্ণ
  • প্রতিটি অন্তঃস্থ কোণে ১৮০° হতে ছোট 
  • সব অন্তঃস্থ কোণের সমষ্টি ৩৬০ ডিগ্রি

অনিয়মিত চতুর্ভুজঃ যে চতুর্ভুজের কোন বাহুই সমান্তরাল না তাকে অনিয়মিত চতুর্ভুজ বলে।

চতুর্ভুজের বৈশিষ্ট্যঃ সমতল জ্যামিতিতে  কয়েক ধরনের চতুর্ভুজ বিদ্যমান। কিন্তু এইসব চতুর্ভুজের মধ্যে বেশ কিছু বৈশিষ্ট্য লক্ষ্য করা যায়। চতুর্ভুজের সাধারণত কয়েকটি বৈশিষ্ট্য রয়েছে।

  • চারটি বাহু
  • চারটি শীর্ষ
  • দুইটি কর্ণ

চতুর্ভুজের অন্যান্য বৈশিষ্ট্য গুলোর মধ্যে লক্ষ্য করা যায়

*একটি বাহু আর একটি ছেদকে হয় জটিল চতুর্ভুজ

*সূক্ষ্মকোণ ও  দুইটি প্রবৃদ্ধ কোণ থাকে জটিল চতুর্ভুজের চারটি কোণের মধ্যে।

*প্রত্যেকটি কোণের অন্তঃস্থ পরিমাপ ১৮০ ডিগ্রি অপেক্ষায় ছোট হয় উত্তল চতুর্ভুজের।

*শীর্ষবিন্দুতে মিলিত হয় সরল চতুর্ভুজের সন্নিহিত বাহু দুইটি।